জন্মদিনে

[This is the companion piece to the one written the day before and cannot bear further elaboration.]

যে বীজ নিহিত ছিল

শ্রাবণে সে দেখেছিল আলো

স্নেহের লালনে তার ডালজোড়া কিশলয়

ফুটেছিল ফুল,

এবং আত্মায় তার উদ্দাম খ্যাপামি;

মেঘে রৌদ্রে শ্রাবণেরই প্রতিচ্ছায়া

এবং ফুলের মতো হলুদ হলুদ

ডোরাকাটা মায়াবী স্বপ্নের গুচ্ছ

ব্লেকের বাঘের মতো সমুজ্জ্বল!

মালঞ্চে এলোনা বাঘ, চয়নে যে এলো

সে অগ্রহায়ণের মতো নিরুত্তাপ,

অহং-সর্বস্ব এক ধূসর প্রেমিক…

রয়ে গেল শরতের ফাঁক৷

এখন দিগন্ত জুড়ে আবার শ্রাবণ,

তবু অনিকেত সেই গাছ৷

শরতের প্রত্যন্ত সীমায়

হয়ত কখনো টের পাবে:

সিঞ্চনে কৃপণ, তবু অগ্রহায়ণের

দেবার অনেক কিছু আছে৷

নির্বাসন থেকে ফিরে অঘ্রানের নতুন বাগানে,

শ্রাবণ, এবার তুমি মহীরুহ হবে!

(শাহাগঞ্জ ৯.৮.১৯৮৮)

Advertisements

2 thoughts on “জন্মদিনে

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s